বাণী : নারগীস সুলতানা, জেলা শিশু সংগঠক

নারগীস সুলতানা

বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যার প্রায় অর্ধেক শিশু। জাতির ভবিষ্যৎ কর্ণধার এই শিশুদের দেশের যোগ্য নাগরিক হিসাবে গড়ে তুলে তাদের শারীরিক, মানসিক, সাংস্কৃতিক ও সুপ্ত প্রতিভার বিকাশ সাধনের লক্ষ্যে ১৯৭৬ সালে বাংলাদেশ শিশু একাডেমী প্রতিষ্ঠিত হয়। শিশুর নিরাপত্তা ও কল্যাণ সম্পর্কে জাতিসংঘ কর্তৃক ১৯৮৯ সালে শিশু অধিকার সনদ গৃহিত হলেও এর প্রায় তের বৎসর পূর্বে ১৯৭৬ সালে বাংলাদেশের শিশুদের সার্বিক উন্নয়ন এবং জাতীয় স্বার্থে শিশুদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকার উপলব্ধি থেকে বাংলাদেশ শিশু একাডেমী প্রতিষ্ঠা লাভ করে। বর্তমানে বাংলাদেশ শিশু একাডেমী, দোয়েল চত্বর সড়ক, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০ এর কার্যক্রম বাস্তবায়িত হচ্ছে। বাংলাদেশ শিশু একাডেমী শিশুদের সাংস্কৃতিক ও মানসিক বিকাশের একমাত্র জাতীয় প্রতিষ্ঠান। শিশু একাডেমীর মূল কর্মকান্ড পরিচালিত হয় কেন্দ্রীয় ইউনিট থেকে। একই কর্মসূচি কেন্দ্রীয় অফিসসহ সকল জেলায় অনুসরণ করা হয়। জেলা শাখাগুলোর সুষ্ঠু পরিচালনার জন্য জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে একটি পরিচালনা কমিটি রয়েছে। প্রতিটি উপজেলায় শিশুদের কার্যক্রম পরিচালনার জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নেতৃত্বে স্থানীয় কমিটি রয়েছে। এভাবে দেশের সকল শিশুকে একাডেমীর কর্মকান্ডের আওতায় আনার একটি কার্যকর প্রক্রিয়া চালু করা সম্ভব হয়েছে।